1. info@www.newsibangla.com : news :
কুমিল্লা-১১ (চৌদ্দগ্রাম)-এ তরুণ প্রার্থী মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম - News i Bangla
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আতাউর রহমান মিল্টন বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত সরকার ফারহানা আখতার সুমি চট্টগ্রামে র‌্যাবের পাতা ফাঁদে আঁটকে গেল ৪ চাঁদাবাজ নাজাত যেন মেলে নালিতাবাড়ীতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের গণসংযোগ এক বছরের মাথায় চিলাহাটি এক্সপ্রেস কোচ লক্কড়ঝক্কড় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী যোগদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত গাজীপুরের শ্রীপুরে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চিলাহাটিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা

কুমিল্লা-১১ (চৌদ্দগ্রাম)-এ তরুণ প্রার্থী মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম

হাজী  লুৎফুর রহমান রাকিব
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ১৩৫ বার পড়া হয়েছে

হাজী  লুৎফুর রহমান রাকিব, কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি: মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি, ইসলামী ছাত্র খেলাফত বাংলাদেশ। যুগ্ম সদস্য সচিব, ইসলামী যুব খেলাফত বাংলাদেশ। ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক, ইসলামী ঐক্যজোট। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, মুহসিনুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন। প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম, মুহসিনুল উম্মাহ আইডিয়াল মাদরাসা ঢাকা। স্বত্ত্বাধিকারী, আল-মক্কা ট্রাভেলস, ভাইস প্রেসিডেন্ট, ঢাকা জোনাল কমিটি, আটাব।

তিনি আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সংসদীয় আসন (২৫৯) কুমিল্লা ১১-(চৌদ্দগ্রাম)এ ইসলামী ঐক্যজোট মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মিনার প্রতীকে নির্বাচন করবেন। এ আসনটি কুমিল্লার একটি গুরুত্বপূর্ণ আসন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনের ভোটার সংখ্যা ছিল ৩,২৮,১৬০। এবার ভোটারের সংখ্যা চার লক্ষের বেশি। নির্বাচনের বহু আগ থেকেই তিনি এলাকায় সরব রয়েছেন। সামাজিক বহুমুখী কর্মকান্ডে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন।

করোনাকালীন সময় থেকে দাফন-কাফন, গৃহহীনদের গৃহনির্মাণ, অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নির্বাচনকে সামনে রেখে সবার খবরের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। তাঁর সাক্ষাৎকারের কিয়দাংশ পাঠকের সামনে তুলে ধরেছেন বিশেষ প্রতিবেদক। প্রতিবেদক: নির্বাচনে কেন প্রার্থী হলেন? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: জনগণের সেবা করার উদ্দেশ্য। প্রতিবেদক: জাতীয় নির্বাচনের পূর্ব অভিজ্ঞতা আছে? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: অবশ্যই।

মুফতি ফজলুল হক আমিনী রহ. এর কর্মী হিসেবে দুটি নির্বাচনের অভিজ্ঞতা রয়েছে। সে অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েই এবারের নির্বাচন। প্রতিবেদক: ২০০১ এর নির্বাচনে ইসলামী ঐক্যজোট জোটগতভাবে নির্বাচন করে সংসদে ৪টি আসন পেয়েছে। এবার এককভাবে নির্বাচন। তাহলে কতটুকু আশাবাদী? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: গতবারে দিনের ভোট রাতে হয়েছে। এবার নির্বাচন কমিশন আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছে, দিনের ভোট দিনেই হবে।

সুতরাং সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমরা আশাবাদী। প্রতিবেদক: যদি কারচুপি হয় তাহলে? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নিবে ইসলামী ঐক্যজোট। যদি কারচুপি হয় তাহলে বয়কট করতে পারি। সবার খবর: কত আসনে প্রার্থী দিয়েছে ইসলামী ঐক্যজোট? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম:৪৭ আসনে। অনেক প্রার্থীর সাক্ষাৎকার আমরা নিয়েছি। এর মধ্য থেকে যাদের ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছি তাদেরকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছি।

প্রতিবেদক: এলাকার জনগণের প্রতি আপনার প্রতিশ্রুতি কি? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: আমার এলাকা সীমান্তবর্তী এলাকা। মাদক, কিশোর গ্যাং রয়েছে। এগুলো নির্মূল করে আমি একটি আধুনিক ও শিক্ষিত নগরী হিসেবে চৌদ্দগ্রামকে গড়ে তুলতে চাই। প্রতিবেদক: প্রার্থী হিসেবে আপনি এলাকায় নতুন? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: প্রার্থী হিসেবে আমি নতুন হলেও মানুষ নৌকার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ। এক্ষেত্রে মিনার প্রতীক সবার পছন্দের।

ইতিমধ্যেই মিনারের পক্ষে জোয়ার শুরু হয়ে গেছে। তাছাড়া একজন আলেম প্রার্থী চৌদ্দগ্রামবাসীর স্বপ্ন ছিল। সে স্বপ্ন পূরণের এখন সময় এসেছে। প্রতিবেদক: ভোটারদের প্রতি আপনার আহ্বান? মুফতি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম: ভোট একটি পবিত্র আমানত। এ আমানত যথাযথ জায়গায় প্রদান করবেন। মনে রাখবেন, আপনার প্রদত্ত ভোটের কারণে কেউ অন্যায় করলে আপনি এর জন্য দায়ী হবেন। সুতরাং সৎ, যোগ্য এবং দেশপ্রেমিক প্রার্থীকে নির্বিঘ্নে ভোটদান করুন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং