1. info@www.newsibangla.com : news :
লোহাগড়ার ইতনায় সরকারি অনুমোদন ছাড়াই রাস্তার পাশের লক্ষ, লক্ষ টাকার গাছ বিক্রি - News i Bangla
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আতাউর রহমান মিল্টন বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত সরকার ফারহানা আখতার সুমি চট্টগ্রামে র‌্যাবের পাতা ফাঁদে আঁটকে গেল ৪ চাঁদাবাজ নাজাত যেন মেলে নালিতাবাড়ীতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের গণসংযোগ এক বছরের মাথায় চিলাহাটি এক্সপ্রেস কোচ লক্কড়ঝক্কড় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী যোগদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত গাজীপুরের শ্রীপুরে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চিলাহাটিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা

লোহাগড়ার ইতনায় সরকারি অনুমোদন ছাড়াই রাস্তার পাশের লক্ষ, লক্ষ টাকার গাছ বিক্রি

অনলাইন ডেক্স
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৬৬ বার পড়া হয়েছে

আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার: নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের ইতনা – রাধানগর রাস্তার দুই পাশ থেকে শতাধিক মুল্যবান গাছ বিক্রি করেছে ওই ইউনিয়নের কতিপয় কমিটির একদল দুর্বৃত্তরা কর্তনকৃত গাছের আনুমানিক মূল্য কুড়ি ২০ লক্ষ টাকা।

এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে ইতনা- বারপাড়া বনায়ন সমিতির সভাপতি শেখ মাহাতাব উদ্দিন ধলু ও সাধারণ সম্পাদক খন্দকার খলিলুজ্জামান উল্লেখিত রাস্তার পাশের গাছ বিক্রি করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরোজমিনে ঘুরে দেখা গেছে ৫/৬ দিন ধরে উক্ত সড়কের দুই পাশ থেকে মূল্যবান রেইনট্রি, মেহগনি,আকাশমনি,বাবলা সহ অন্যান্য গাছ কাটা হচ্ছে।

আর এই গাছ কিনেছেন ওই ইউনিয়নের লংকারচর গ্রামের রবিউল ইসলাম (মাস্টার), ও ইতনা গ্রামের আব্দুর রহমান মোল্যা এবং শাহাবুদ্দিন সাবু তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে ওই অনিবন্ধিত সমিতির সভাপতি ও সম্পাদকের নিকট থেকে ১৭ লাখ ৩০ হাজার টাকায় রাস্তার পাশের গাছ ক্রয় করেছে তারা।

এবিষয়ে বন বিভাগ ও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাগজপত্র দেখতে চাইলে তারা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে পারেন নাই।

এসময় ওই কাঠ ব্যাবসায়ীরা কাজ ক্রয় করা যে কাগজটি দেখিয়েছেন সেই কাগজে সরকারি কতৃপক্ষের কোন সিল,সই ও স্বাক্ষর নাই।

এব্যাপারে ইতনা- বারপাড়া বনায়ন সমিতির সভাপতি মোঃমাহাতাব উদ্দিন ধলুর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন আমরা হাওয়ার উপর এসে গাছ কাটতেছিনা গাছ বিক্রি করার সমস্ত কাগজপত্র আছে এসময় তার কাছে কাগজ দেখতে চাইলে তিনি জানান কাগজ আপনাদের দেখাতে হবে এরকম কোন বাধ্যকতা আছে নাকি পরে একদিন আসেন কাগজ দেখাবো,
তিনি আরও বলেন চেয়ারম্যান সাহেবের সাথে কথা বলেন তিনি সব জানেন,

এবিষয়ে ইতনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সিহানুক রহমানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান ওই গাছ বিক্রির জন্য ওই কমিটি বিভিন্ন জায়গায় দৌড়াদৌড়ি করতেছিল এটা আমি জানি,কিন্তু পরে কি হইছে সেটা আমার জানা নেই,

এঘটনায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি)
আফরিন জাহান এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন গাছ কাটার বিষয়ে আমি কিছু জানি না, আপনাদের মাধ্যমে বিষয়টি অবগত হলাম। গাছ কাটা বন্ধ করে দেওয়া হবে, তাদের কাছে গাছ কাটার কাগজপত্র না থাকলে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে নড়াইল জেলা বন বিভাগের কর্মকর্তা ( ভারপ্রাপ্ত) আব্দুর রশিদ বলেন গাছ কাটার বিষয়টি বন বিভাগ অবগত নাই, তবে সরকারি কোন গাছ কাটতে হলে অবশ্যই বন বিভাগের অনুমোদন প্রয়োজন। তারা যে কাজটি করেছে তা সম্পূর্ণ বেআইনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং