1. info@www.newsibangla.com : news :
নাগরপুরে কর্মস্থলে যত্রতত্র অনুপস্থিত সমবায় কর্মকর্তা, ইউএনও কর্তৃক কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রেরণ - News i Bangla
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আতাউর রহমান মিল্টন বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত সরকার ফারহানা আখতার সুমি চট্টগ্রামে র‌্যাবের পাতা ফাঁদে আঁটকে গেল ৪ চাঁদাবাজ নাজাত যেন মেলে নালিতাবাড়ীতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের গণসংযোগ এক বছরের মাথায় চিলাহাটি এক্সপ্রেস কোচ লক্কড়ঝক্কড় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী যোগদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত গাজীপুরের শ্রীপুরে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চিলাহাটিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা

নাগরপুরে কর্মস্থলে যত্রতত্র অনুপস্থিত সমবায় কর্মকর্তা, ইউএনও কর্তৃক কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রেরণ

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের নাগরপুরে সমবায় কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফয়েজ হোসেন এর খেয়াল-খুশিতে চলছে উপজেলা সমবায় অফিস। এতে সেবা নিতে আসা জনসাধারণ নানা ভাবে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে। অসুস্থতার অজুহাত ও কর্মসূচি পরিদর্শনের নামে অধিকাংশ সময় কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকেন তিনি। গত ১৬ ই ডিসেম্বর জাতীয় দিবস পালনেও অনুপস্থিত ছিলেন অনিয়মিত এই সমবায় কর্মকর্তা। এছাড়াও ১৭ ও ১৮ ডিসেম্বর সরেজমিনে গিয়েও অফিস সময়ে অনুপস্থিত পাওয়া যায় তাকে। এমন অভিযোগ বিষয়ে নাগরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রেজা মো. গোলাম মাসুম প্রধান বলেন, সমবায় অফিস নিয়ে আমি নিজেও বিব্রত। এই অফিস সরাসরি জনসাধারণে সেবা প্রদানের সাথে সংশ্লিষ্ট বিধায় সবসময় এই অফিসের চলমান কার্যক্রম আমাদের প্রয়োজন। অথচ কর্মস্থলে সমবায় কর্মকর্তার উপস্থিতি সন্তোষজনক নয়। গত ১৬ ই ডিসেম্বর গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় দিবসেও তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। এটি মোটেও কাম্য নয়। ফলে আমি উপজেলা প্রশাসনের সমন্বয়ক কর্মকর্তা হিসেবে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। এছাড়াও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। পরবর্তীতে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে নাগরপুর উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফয়েজ হোসেন বলেন, ১৬ ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালন উপলক্ষে করা কোনো কমিটিতে আমাকে রাখা হয় নাই। সেইদিন আমার উপস্থিত থাকা গুরুত্বপূর্ণ না বিধায় ছিলাম না অফিসে। এছাড়াও আমি অসুস্থ থাকায় কয়েকদিন অফিসে অনুপস্থিত ছিলাম। ছুটি সংক্রান্ত কাগজ ই-মেইলে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে প্রেরণ করেছি।

উল্লেখ্য, সমবায় কর্মকর্তা ছুটি সংক্রান্ত ও যথাযথ তারিখের চিকিৎসা ব্যবস্থাপত্র সহ অন্যান্য কোনো কাগজপত্র প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং