1. info@www.newsibangla.com : news :
হ্নীলা - জাহাজ পুরার ঢালা সংস্কার করা হলে হ্নীলা হবে টেকনাফের একটি অন্যতম অর্থনৈতিক অঞ্চল - News i Bangla
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৯:০০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আতাউর রহমান মিল্টন বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত সরকার ফারহানা আখতার সুমি চট্টগ্রামে র‌্যাবের পাতা ফাঁদে আঁটকে গেল ৪ চাঁদাবাজ নাজাত যেন মেলে নালিতাবাড়ীতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের গণসংযোগ এক বছরের মাথায় চিলাহাটি এক্সপ্রেস কোচ লক্কড়ঝক্কড় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী যোগদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত গাজীপুরের শ্রীপুরে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চিলাহাটিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা

হ্নীলা – জাহাজ পুরার ঢালা সংস্কার করা হলে হ্নীলা হবে টেকনাফের একটি অন্যতম অর্থনৈতিক অঞ্চল

অনলাইন ডেক্স
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

জামাল উদ্দীন- কক্সবাজার প্রতিনিধি : টেকনাফের ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়ন  হ্নীলা ও উপকূলীয় ইউনিয়ন বাহারছড়ার জাহাজপুরা সংযুক্ত পাহাড়ী ঢালা টি সংস্কারও নির্মাণ করা হলে
হ্নীলা হবে টেকনাফের অন্যতম অর্থনৈতিক অঞ্চল।
পাশাপাশি  দুই ইউনিয়নের যাতায়ত সুবিধাও বৃদ্ধি পাবে বলে দুই  এলাকা সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু মানুষের  মুখেমুখে শোনা যাচ্ছে।
উখিয়া – টেকনাফের সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদআলী বিগত ১৯৯৬ সালের সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর ১৯৯৮ সালের দিকে পাহাড়ী এই ঢালা টির সংস্কারের কাজ হাতে নিয়েছিল।এসময় তিনি পাহাড়ী এই ঢালাটি খনন করার পর প্রায়ই ৬/৭ কিলোমিটার মত ইট দিয়ে ব্রিকচলিনের কাজ করেছিল।এরপর থেকে কোন এমপি ও জনপ্রতিনিধি  এই ঢালা টি সংস্কারের উদ্যোগ নেই নি বলে বোদ্ধামহলের  কাছে জানাগেছে।যার কারণে হ্নীলা এবং বাহারছড়া ইউনিয়ন দুইটি অবহেলিত হয়ে পড়ে রয়েছে।এর পরবর্তী যারা এমপি নির্বাচিত হয়েছিল তারা কেউ  হ্নীলার উন্নয়ন হউক সেটা চাইনি। সাবেক এমপি আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদআলী হ্নীলার ছেলে বলে হ্নীলার উন্নয়নের কথা চিন্তা করে ঢালাটি কিছু টা হলে ও সংস্কার করেছিল।যার জন্যে হ্নীলার মানুষ আজীবন অধ্যাপক মোহাম্মদআলী স্যার কে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখবে।
টেকনাফ  উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক এমপি অধ্যাপক মোহাম্মদআলীর রাজনৈতি সহচর হ্নীলা পান খালী এলাকার মুরুব্বি রশিদ আহমদ বলেছেন ঢালা টি সংস্কার ও পুর্ন নির্মান করা এতদা অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবীতে পরিণত  ছিল,এটা সংস্কার হলে সংশ্লিষ্ট দুই  ইউনিয়নের  যাতায়ত সুবিধাবৃদ্ধি ও  ব্যাপক অর্থনৈতিক উন্নতি সাধিত হবে বলে মত প্রকাশ করেছেন তিনি।
হ্নীলা  ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদমাহমুদআলী বলেন,হ্নীলা এবং বাহার ছড়া সংযোগ ঢালাটি আমার বাবা যে আমলে এমপি ছিলেন তখন সংস্কার করেছিল এরপর থেকে আর কেউ উদ্যোগ নেয়নি।আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পর থেকে বাবার অসমাপ্ত কাজ করার স্বপ্ন দেখি কিন্তু  কারো সহযোগিতা  পাইনি,তারপরও কর্মসৃজন প্রকল্প কাজের কিছু বরাদ্ধ নিয়ে কিছুটা হলেও সংস্কার করেছি। আমি আশা করছি বর্তমান সাংসদ শাহিনাআক্তার চৌধুরীর নেতৃত্বে  এবার কাজ করাতে পারব এবং হ্নীলাবাসীর দাবীই তাই।

হ্নীলা  ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান  বার বার নির্বাচিত ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার  আবুল হোছাইন বলেছেন এবার হলেও আমরা হ্নীলা – জাহাজ পুরা ঢালাটি সংস্কারও নির্মাণ করে হ্নীলা কে অর্থনৈতিক মুক্তি দেওয়ার জন্য সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদি ও বর্তমান দুই বারের নির্বাচিত সাংসদ শাহিনাআক্তার চৌধুরীকে জোর দাবী জানাচ্ছি।
বাহারছড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান পূত্র মাওঃ রফিক উল্লাহ বলেছেন ঢালাটি সংস্কার  করাহলে দুই  জনপদের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হবে,শিক্ষার মানোন্নয়ন হবে,পাশাপাশি আইন শৃংখলা পরিস্হিতির উন্নতি হবে বলে আমি আশা প্রকাশ করছি।
আরেক সাবেক চেয়ারম্যান পূত্র আজিজুল্লাহ বলেছেন এঢালাটি সংস্কার করার কথা অনেক আগে থেকে শুনে আসছি কিন্তু কাজের কাজ কোন কিছু হয়না,হলেতো অনেক ভালো হতো।
সাবেক চেয়ারম্যান পূত্র হ্নীলার ঢালা সংশ্লিষ্ট এলাকার অধিবাসী ও টেকনাফ উপজেলা কৃষক লীগের  সভাপতি জাহেদ হোসেন সম্রাট বলেছেন এই ঢালা টি সংস্কারও নির্মান এখন সময়ের অনিবার্য দাবী,এটা সংস্কার করাহলে এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে বলে এলাকাসীর জোর দাবী।
এদিকে  এই ঢালাটি নির্মান হলে এলাকাবাসীর যাতায়ত সুবিধা,পড়া লেখার মান উন্নয়ন,ব্যবসা বাণিজ্যসমপ্রসারণও অর্থনৈতিক উন্নয়ন বৃদ্ধি  পাবে। অপর দিকে ঐ ঢালা সংলগ্ন এলাকায় একটি পুলিশফাঁড়ী স্থাপন করাহলে আইন শৃংখলা পরিস্হিতির উন্নয়ন সহ এলাকায় ডাকাতিও কমে যাবে বলে দুই ইউনিয়নে বসবাসকী জনসাধারণ মনে করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং