1. sumondomar2021@gmail.com : sumon islam : sumon islam
  2. info@www.newsibangla.com : news :
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৭:১১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
চিলাহাটিতে খাসি মোটাতাজকরণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল পদকে ভূষিত হলেন বরগুনার পুলিশ সুপার মোঃ আবদুস ছালাম নড়াইলের শান্তা সেনের মেডেকেল শিক্ষা জীবন সম্পন্ন করতে দারিদ্র বাবা-মায়ের দুঃশিন্তা রংপুরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর আমৃত্যু কারাদণ্ড শিশু নুসরাতকে শ্বাসরোধে হত্যা করলো সৎ মা আদালতে স্বীকারোক্তি বরগুনা প্রেসক্লাবে হামলার ঘটনায় মামলা, পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেড় বছর আগে ভেঙেছে ব্রিজ, মেরামতের উদ্যোগ না থাকায় ভোগান্তিতে এলাকাবাসী চকবাজারের যানজটে আটকে থাকতে হবে না নগরবাসীকে : মেয়র প্রার্থী কায়সার তজুমদ্দিনে “মহান শহীদ দিবস” ও “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” পালিত হয়েছে হাতীবান্ধায় মাদকসহ জলঢাকা পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আটক

ঝিনাইদহে আমেনা খাতুন কলেজে পালিত হল, পিঠা উৎসব

অনলাইন ডেক্স
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

মোঃ উজ্জ্বল বিশ্বাস, ঝিনাইদহ: শীতকাল মানেই বাড়িতে বাড়িতে বাহারি সব পিঠার আয়োজন। পিঠার এ আয়োজন বাঙালি সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। পিঠার নাম শুনলে জিভে জল আসেনা এমন বাঙালি একজনও পাওয়া যাবে না। শীতে বাড়িতে পিঠার আয়োজন শীতের একটি নিয়মিত ব্যাপার। কিন্তু এটি যদি হয় কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আয়োজন তাহলে কেমন হয়। “সবাই মিলে পিঠা খাই, আনন্দ উৎসবে মন রাঙাই” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে তেমনি এক ব্যতিক্রমি পিঠা উৎসবের আয়োজন হয়েছিলো ঝিনাইদহ সদর উপজেলার রবি নারিকেল বাড়িয়া আমেনা খাতুন কলেজে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে বিকাল পর্যন্ত আমেনা খাতুন কলেজ মাঠে চলে এ পিঠা উৎসব। সকালে রবি নারিকেলবাড়ীয়া কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মহিদুজ্জামানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ১৪নং ঘোড়শাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ মাসুদ লিল্টন পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন।
পিঠা উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আমেনা খাতুন কলেজ পরিচালনা পর্ষদের নবনির্বাচিত সভাপতি ভাষা সৈনিক মুসা মিয়ার সন্তান আবু শাহরিয়ার জাহেদী পিপুল। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান টুকু সহ কলেজের শিক্ষকমন্ডলী।
পিঠা উৎসবে আমেনা খাতুন কলেজ সহ আশেপাশের বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। উৎসবে বাহারি সব পিঠার আয়োজনে সেজেছিলো ২২টি স্টল। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি স্টলে ছিলো মানুষের উপচে পড়া ভিড়। উৎসব শেষে প্রধান অতিথি সেরা তিনটি স্টলকে পুরস্কার তুলে দেন এবং অংশগ্রহণকারী সকল স্টলকে শুভেচ্ছা স্বারক তুলে দেন।
পিঠা উৎসবে অংশগ্রহণকারী ঝিনাইদহ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফারিয়া ইসলাম মিম বলেন, আমি আমার মায়ের সাথে পিঠা উৎসবে অংশগ্রহণ করেছি। আমি খুবই আনন্দিত এবং আপ্লুত এমন আয়োজনে অংশগ্রহণ করতে পেরে। আমি অনেক পিঠার নাম জানতাম না সেগুলো আজ জনতে পেরেছি এবং সেগুলোর রেসিপি জেনেছি।
পিঠা উৎসবে ঘুরতে আসা শাওন হাসান বলেন, আমি একজন শিক্ষকের মাধ্যমে জানতে পেরে পিঠা উৎসব দেখতে এসেছি। বিভিন্ন ধরনের পিঠা খেয়েছি। খুব মজার হয়েছে পিঠাগুলো। আমি চাই প্রতি বছর এমন আয়োজন করা হোক।
পিঠা উৎসবের আয়োজক আমেনা খাতুন কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মহিদুজ্জামান বলেন, বাঙালি সংস্কৃতির অংশ হিসেবে রকমারি পিঠার আয়োজন আমরা করেছি। আমাদের শিক্ষার্থীসহ আগত সকলে বিভিন্ন ধরনের পিঠা খেতে ও পিঠা সম্পর্কে জানতে পারছে। আমরা আগামীতেও এ ধরনের আয়োজন অব্যাহত রাখবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং