1. sumondomar2021@gmail.com : sumon islam : sumon islam
  2. info@www.newsibangla.com : news :
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৩:৩৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা ফুলবাড়ীতে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত কচুয়ায় খামারে অগ্নিসংযোগ এবং পুকুরে বিষ প্রয়োগ আগুনে পুড়ে মারা গেল মির্জাপুরের মেহেদী বাংলাদেশ কম্পিউটার সোসাইটি’র নবনির্বাচিত কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর। নাঃগঞ্জে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বইমেলায় কবিদের উত্তরীয় দিয়ে বরণ। চিলাহাটিতে খাসি মোটাতাজকরণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল পদকে ভূষিত হলেন বরগুনার পুলিশ সুপার মোঃ আবদুস ছালাম নড়াইলের শান্তা সেনের মেডেকেল শিক্ষা জীবন সম্পন্ন করতে দারিদ্র বাবা-মায়ের দুঃশিন্তা রংপুরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর আমৃত্যু কারাদণ্ড

মন্জুর রাফিকে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দেখতে চাই সদরবাসী

অনলাইন ডেক্স
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৬৫ বার পড়া হয়েছে

জামালপুর প্রতিনিধি : আসন্ন উপজেলা নির্বাচন ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে তফসিল ঘোযনা হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করেছেন। জামালপুর সদর উপজেলাতেও নির্বাচনী হাওয়া বেশ জুড়ে সুরে বয়তে শুরু করেছে।
এদের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী জামালপুর সদর উপজেলার ২নং শরিফপুর ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের আকন্দ বাড়ির সম্ভান্ত্র পরিবারের ও আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান মোঃ মণ্জুর রাফি আকন্দ। তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভাসহ গণসংযোগ রক্ষা করে চলেছেন। এতে মানুষের মাঝে সাড়াও পড়েছে বেশ।
জামালপুর সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার সকল জনপ্রতিনিধি এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, প্রত্যেকটি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহযোগী সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। সাংগঠনিক ব্যক্তি হিসেবে মন্জুর রাফি কে
জামালপুর সদর উপজেলার চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন ও বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার কাছে আহবান জানিয়েছেন ভোটার ও তৃণমূল নেতাকর্মী।
তাদের বক্তব্যে উঠে আসে, আসন্ন উপজেলা পরিষদের নির্বাচন হবে একটি চ্যালেঞ্জিং নির্বাচন। যার কারণে এই উপজেলায় একজন দক্ষ ও সাংগঠনিক ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়ার প্রয়োজন। সাংগঠনিক ব্যক্তি মনোনয়ন পেলে খুব সহজেই এই আওয়ামী লীগের বিজয় লাভ করতে পারবে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে পারবেন তিনি।
তারা আরও বলেন, অতীতে এই উপজেলায় পাঁচ জন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু সদরে তেমন কোন উন্নয়ন হয়নি। গ্রামীণ অবকাঠামোর উন্নয়নও হয়নি। তাই সদর উপজেলাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই উপজেলায় কর্মীবান্ধব, সাংগঠনিক কর্মদক্ষ উপজেলা চেয়ারম্যান থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা এবার জনপ্রিয় ও কর্মদক্ষ প্রার্থীর হাতে উপজেলা চেয়ারম্যানের নিকট নৌকা প্রতিক দেখতে চান তাঁরা। আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মধ্যে মোঃ মুন্জুর রাফিকে
একজন সাংগঠনিক কর্মদক্ষ, কর্মীবান্ধব ও তৃণমূলের আশা-ভরসার শেষ আশ্রয়স্থল মনে করেন নেতাকর্মীরা। তারা মনে করেন তিনি যদি মনোনয়ন পান এবং উপজেলা চেয়ারম্যান হতে পারেন তাহলে তৃণমূলের আস্থার প্রতিফলন ঘটবে।রশিদপুর ইউনিয়নের জলিল মাস্টার এই প্রতিবেদক কে বলেন, জামালপুরের উন্নয়নের রূপকার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি ও প্রধানমুন্ত্রীর সাবেক মূখ্য সচিব সদরের এমপি আবুল কালাম আজাদ তাদের দু’জনের নেতৃত্বে জামালপুর জেলায় অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ড হয়েছে। জামালপুর সদরে উন্নয়ন করতে হলে তাদে দুজনের ও মত একজন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রয়োজন। আর সে হলো তৃণমূলের নেতাকর্মীদের আস্থার প্রতীক মন্জুর রাফি ।

তিনি সদর উপজেলার সর্বজন পরিচিত। তিনি যদি মনোনয়ন পেলে উপজেলা চেয়ারম্যান হতে পারেন বলে আমরা বিশ্বাস করি এবং জামালপুর সদর একটি মডেল উপজেলায় পরিণত হবে।”
উল্লেখ্য, মুন্জু রাফির পরিবারের সদস্যগণ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভক্ত ও আওয়ামী লীগের র্দুদিনে এবং সকল রাজনৈতিক কর্মকান্ড থেকে শুরু করে সকল আন্দোলনে অংশ গ্রহন করেছেন। এলাকায় দরিদ্র, হত দরিদ্র ও খেটে-খাওয়া মানুষের শোক-দুঃখে পাশে থাকেন তার পরিবার । বিশ্বসহ বাংলাদেশে যখন করোনা মহামরিতে সবকিছু থেমে গিয়েছিল তখন মুন্জর রাফি নিজের মৃত্যুর কথা চিন্তার না করে ক্ষুধার্ত অসহায় মানুষের পাশে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।দু’মুঠো খাবার খেতে পেয়ে তার জন্য দোয়া করেছেন। এছাড়াও তার পরিবারটি এলাকায় দানরীর নামে খ্যাত।
মন্জুর রাফি আকন্দের ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতি শুরু। একজন সফল নেতা , একজন আদর্শ নেতার মধ্যে যে গুণাবলি থাকা দরকার প্রতিটি গুনে গুনাণিত।
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ২ নং শরিফপুর ইউনিয়ন শাখার সাবেক সফল ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক,
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নান্দিনা সাংগঠনিক উপজেলা শাখা সাবেক সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জামালপুর সদর উপজেলা শাখার তিন তিনবারের উপপ্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক।
দক্ষ সংগঠক,যার নেতৃত্বে ছাত্র ও যুব সমাজ ঐক্যবদ্ধ। প্রিয় নেতা মঞ্জুরাফি আকন্দ রাজনীতি পাশাপাশি সফল ব্যবসায়ী। জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ দলীয় যোগ্য প্রার্থী। তিনি একজন সফল আওয়ামী লীগের নেতা হিসেবেও তাঁর সুখ্যাতি রয়েছে। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তৃণমূলের বেশিরভাগ নেতাকর্মীরা তাঁকে একজন দক্ষ সাংগঠনিক ব্যক্তি হিসেবেই জানেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং