1. info@www.newsibangla.com : news :
পরিবারের চাপে মৃত্যুর পথ বেছে নিলো ৭ম শ্রেনীর স্কুল পড়ুয়া কিশোরী - News i Bangla
বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আতাউর রহমান মিল্টন বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত সরকার ফারহানা আখতার সুমি চট্টগ্রামে র‌্যাবের পাতা ফাঁদে আঁটকে গেল ৪ চাঁদাবাজ নাজাত যেন মেলে নালিতাবাড়ীতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের গণসংযোগ এক বছরের মাথায় চিলাহাটি এক্সপ্রেস কোচ লক্কড়ঝক্কড় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী যোগদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত গাজীপুরের শ্রীপুরে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত চিলাহাটিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শেকড়ের সন্ধানে শীর্ষক সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে সপ্তম মিলনমেলা

পরিবারের চাপে মৃত্যুর পথ বেছে নিলো ৭ম শ্রেনীর স্কুল পড়ুয়া কিশোরী

সাবরিনা জাহান
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৩ বার পড়া হয়েছে

সাবরিনা জাহান,গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি

আগাজীপুর মহানগর গাছা থানাধীন ৩৮ নং ওয়ার্ডে দক্ষিণ খাইলকুর জনৈক আবু সাঈদের ভাড়াটিয়া নুসরাত জাহান মিম (১২), পিতা- মাসুদ রানা, মাতা- আকলিমা আক্তার সুমি, সাং- ডাহিরপাড়া, থানা- নালিতাবাড়ী, জেলা- শেরপুর। গাছা থানাধীন ইউনিক একাডেমিক স্কুলে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী, ০৯/০২/২০২৪ তারিখ সকাল অনুমান ০৯.০০ ঘটিকার সময় তাদের ঘর হতে ০৪ (চার) ভরি স্বর্ণ এবং ৬,৫০০০০/-(ছয় লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা পাওয়া যাচ্ছে না। উক্ত বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য চলতে থাকে পরবর্তীতে রাতে ৮ ঘটিকায় আবারো জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে মৃত ভিকটিম স্বীকার করেন যে তার প্রেমিক মাসুদ কে (০১৭৫৯-৮২১৪০১) দিয়েছে।
তুমি যেহেতু বিষয়টি আব্বাকে জানিয়েছ (পিতা সৌদি প্রবাসী) এর ফল পাইবা। এই কথা বলে মীম রাত ৯ টায় তার রুমে প্রবেশ করে দরজা আটকে করে দেয়। পরবর্তীতে ভিকটিমের মা কয়েকবার ভিকটিমকে খাওয়ার জন্য বলে, কিন্তু মীম খাবে না বলে জানায়। পরের দিন ১০ তারিখ সকাল ১১ ঘটিকায় মা আকলিমা আক্তার সুমি দরজায় ডাকাডাকি করতে থাকে, দরজা না খোলায়, দরজার নিচ দিয়ে দেখতে পাই যে, মীমের পা ঝুলে আছে। তখন মা আশেপাশের লোকজনদেরকে খবর দেয়। মিমের মা এবং মামী আমাদের জানান, ৩৫ বছরের মাসুদ ভ্যান দিয়ে সবজী বিক্রেতার সাথে আমাদের মেয়ের সম্পর্ক করেছে, মাসুদ কে নাকি ভুলতে পারবে না। মামী তানিয়ার মোবাইল দিয়ে মিম ওই ছেলের সাথে যোগাযোগ করত বলে জানান।
বাড়ির ম্যানেজার জানায়, এই মেয়ে সবজি বিক্রেতার সাথে স্কুলে আসা যাওয়ার ও
দেখা-সাক্ষাতের মাধ্যমে নাকি পরিচয় হয়ে গভীর সম্পর্কে আবদ্ধ হয়, এই বিষয়টি নিয়ে গত (৪) চারদিন ধরে মা মেয়ে এবং মামীর সাথে উচ্চ বাচ্চ কথাবার্তা এবং কি মীম কে মারধর পর্যন্ত করেন। স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ বিষয়টি
তথ্য জানতে গেলে সঠিক তথ্য না দিয়ে নিহত মিমের মামী তানিয়া এবং মামার বন্ধু অলিউল্লা আমাদেরকে নিউজ প্রকাশ করতে না করেন। পরবর্তীতে সাংবাদিকরা কারণ জানতে চাইলে বলেন বাসায় এসে কথা বলেন এবং বিদেশে থাকা মিমের বাবা এবং তার মামার সাথে ফোনে কথা বলবেন। মিমের মামার বন্ধু অলিউল্লার ফোন দিয়ে ইমুতে প্রথমে অলিউল্লাহ কথা বলেন,পরে মামী তানিয়া কথা বলেন। তার পরবর্তীতে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে চান? সাংবাদিকরা নিউজ প্রকাশ না করতে কারণ জানতে চাইলে, সৌদি প্রবাসী মামা আলামিন সাংবাদিকদের পরিচয় জানতে চাইলে, পরিচয় দেন। আমাদের এই নিউজ করতে পারবেন না, তার কথার উত্তরে সাংবাদিকরা বলেন, যা ঘটনা ঘটেছে আমরা তাই নিউজের মাধ্যমে প্রকাশ করবো এটা আমাদের দায়িত্ব? মামা আলামিন বলেন আমাদের এই নিউজ করা যাবে না, বলে
ফোনে বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করেন। পরবর্তীতে স্থানীয় গাছা থানায় সাংবাদিকরা এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়েরি নং ৫৬১- ১০/০২/২০২৪ ইং।
উক্ত বিষয়টি গাছা থানায় সংবাদ আসলে গাছা থানার এসআই সুমন খান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ২য় তলার উত্তর পাশের ফ্ল্যাটের পূর্ব পাশের ভিকটিমের শয়ং কক্ষে দরজা ভেঙ্গে রুমে প্রবেশ করে ভিকটিম কে সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে ফাঁস দেওয়া অবস্থা হইতে নিচে নামিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেন। ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত গাছা থানা পরিদর্শন করেন।
এ বিষয়ে গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। এটি আত্মহত্যা না আত্মহত্যার প্ররোচনা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সাংবাদিকদের একটি সাধারণ ডায়েরি করেন, এ বিষয়ে তদন্তাধীন রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং